Header AD

পলক রহমান এর কবিতা || আজ ঈদ




আজ ঈদ। এমন খুশির ঈদের দিনে আমি 

দুঃখ কষ্টের কথা বলব না। আমি বলব না ক’টা দিন 

কার ঘরে জুটেনি সেহেরী, আমি বলব না কোন পিতা

তার শিশুটির জন্য আজ নতুন জামা কিনতে 

পারানি বলে কষ্ট আর আক্ষেপে ঢেকেছে মুখ।  

আমি বলব না সিন্ডিকেটের দৌরাত্মে অনাকাঙ্খিত  

উপার্যন করল যারা তারা আসলেই কতখানি লাভবান? 

আর যারা খেয়ে না খেয়ে রোজার পরে ঈদের খুশিতে 

শামিল হল তারা কতখানি! 


তাই আমি আজ খুশির কথা বলব, আমি বলব ঈদের 

আনন্দের কথা। যে আনন্দ প্রথম ছড়িয়েছিল মদিনার

ময়দানে ময়দানে, যে আনন্দ ছড়িয়েছিল মুঘলের

অন্দরমহল থেকে ঈদগাহে, যে উৎসবের জোয়ারে 

ভেসেছিল বাংলার আবালবৃদ্ধবনিতা মাঠে ঘাটে প্রান্তরে,

আমি সেই থেকে আজ অবধি আমার নব্য পুরুষের

ঈদ উদযাপনের কথা বলব। আজ ঈদ। 


আমি বলবঃ 

আজ পরণে নতুন জামা নেই, না থাক। 

আছে আমার মা’র দেয়া উন্নয়নের নতুন স্বপ্ন,

আজ ঘরে সেমাই কোরমা পোলাও নেই, না থাক।

আছে আমার বাবার দেয়া ইসলামের আদর্শ,

আজ ঘরে ইথারের পর্দায় আনন্দ নেই, না থাক।

আছে সারা আসমান জুড়ে ঈদের খুশির চাঁদ। 


আজ ভেদাভেদের দিন নয়, ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ির

দিন নয়। কে মুসলিম, কে হিন্দু, কে খ্রষ্টান,

অথবা কে আমীর, কে গরীব, কে ফকির, আজ 

সে অংকপাতের দিনও নয়। আজ সকলের সাথেই 

কোলাকুলি, গলাগলির দিন, সকল অভিযোগ,

অনুযোগ ভুলে গিয়ে কাছে টানার দিন। আজ ঈদ।


আমি আজ বলব না মৃত্যু আর ক্ষুধার যন্ত্রনায় 

কি ভাবে কাঁদছে ফিলিস্তিন, বলব না তাদের কথা

যারা মানবতার কথা বলে নিজেরাই ত্রানসামগ্রীতে 

হানছে বোমার আঘাত, মারছে নিরস্ত্র মানুষ!  

আমি আজ বলব না যে মুসলিম আলো দিয়ে, 

জ্ঞান দিয়ে, ভাতৃত্ববোধের প্রেম দিয়ে শাসন করেছিল 

পৃথিবী, আজ তারা কেন এত অসহায়, কেন তাদের 

বাঁধানো রেনেসাঁয় ছিঁড়ে গেছে পঞ্চমী সুর?  

কেন নীরবতার জং ধরেছে সৌর্য-বীর্যের তলোয়ারে?


আজ ঈদ। আমি তাই খুশির কথা বলব। থাকনা কাঁটা তারের 

যন্ত্রনা, তবু ভাতৃত্বের কথা বলব। রক্ত ঝরছে ঝরুক তবু 

মানবতার কথা বলব। মন্দির মসজিদ গীর্জা ভাঙছে ভাঙ্গুক, 

তবু আমি অসাম্প্রদায়িকতার কথা বলব। অসম উপার্যনে 

ক্ষুধার জ্বালায় কঙ্গালসার পেট, তবু হাসতে হাসতে বলব- 

আছে গোলা ভরা ধান, পুকুর ভরা মাছ, গলা ভরা গান।


তাই বলব- ঈদ যেন না হারিয়ে যায় রক্তাত্ব প্রান্তরে, 

না হারিয়ে যায় ক্ষুধার রাজ্যে, আমীরের কৃষ্ণ কোষাগারে।

না থাক নতুন পোষাক, ফুটো চালের ফাঁক গলে চাঁদ দেখে 

এক মুঠো ভাতেই খুশিতে লুটিয়ে পড়ব সাম্যের কাতারে।  

অনাগত আগামী সহস্র বছরেও ঈদ যেন তবু এমনি করে 

খুশির বার্তা নিয়ে ফিরে মুসলিম জাহানের ঘরে ঘরে। 



Post a Comment

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post

ads

Post ADS 1

ads

Post ADS 1