Header AD

পলক রহমান || '৫২'র ২১শে ফেব্রুয়ারী




আমি ভাষা টাষা বুঝি না। আমি বুঝি আমার মাকে মা বলে আর বাবাকে বাবা বলে ডাকব। বারবিকিউ কর আর চাইনিজ রাঁধো, তা রাঁধতে পারো। আমি কিন্তু পিঁড়িতে বসে আলু ভর্তা, ডিমভাজি আর ডাল দিয়েই ভাত খাব। 


আমি বর্ণমালা টর্ণমালা বুঝি না। আমি বুঝি চোখেমুখে কান্না হাসির একই ভাষা। পেলেস্টাইনের যে শিশু, মা, বাবা, ভাই বোনেরা কাঁদছে, অথবা মায়ের বুকের দুধ পিয়ে যে শিশুটি হাসছে সকল প্রাণিকূলে তার ভাষা একই।


আমি ২১শে ফেব্রুয়ারী টেব্রুয়ারী বুঝি না। আমি বুঝি আমার মা সারাদিন, সারা মাস, সারা বছর, আমৃত্যু যে ভাষায় কথা বলে সেটাই আমার মায়ের ভাষা। আমি সে ভাষাকেই ভালোবাসি। আমি সে ভাষাতেই কথা বলি এবং বলব।


তারপরও একটা কথা থেকেই যায়। তাহলে কেন এই ভাষা নিয়ে বিভিন্ন ভাষাভাষী মানুষেরা এত কথা বলে ফেব্রুয়ারী এলে? কৃষ্ণচূড়া আর শিমূলের রঙ তো জন্মগতভাবেই লাল, তবুও  কেন ফেব্রুয়ারীতে বসন্ত এলে এত লাল হয় শিমূল-কৃষ্ণচূড়া? 


মা'কে মা বলে ডাকার ভাষাকে মর্যাদা দিতে বাঙ্গালীরাই প্রথম রাজপথ রাঙ্গিয়ে ছিল বুকের তাজা লাল রক্তে এ বসন্ত। ভাষারও যে প্রান আছে, অধিকার আছে, আছে বেঁচে থাকার স্বাধীনতা তা জানান দিয়েছিল বিশ্ববাসীকে '৫২'র ২১শে ফেব্রুয়ারী।


০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪।

Post a Comment

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post

ads

Post ADS 1

ads

Post ADS 1